Agaminews
Agaminews Banner

মির্জাগঞ্জে ডায়রিয়ায় প্রকোপ: এক হাজার স্যালাইন দিলেন ডা: ওহাব মিনার


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: এপ্রিল ২১, ২০২১ ৬:০৮ অপরাহ্ণ মির্জাগঞ্জে ডায়রিয়ায় প্রকোপ: এক হাজার স্যালাইন দিলেন ডা: ওহাব মিনার
মির্জাগঞ্জ(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি ॥
মির্জাগঞ্জে প্রতিদিনই বাড়ছে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। ভয়াবহ ডায়রিয়া পরিস্থিতি মোকাবিলায় শরীরে পুশ করার আইভি স্যালাইন সংকট থাকায় হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এই সংকট মূহুর্তে গতকাল বুধবার (২১ এপ্রিল) সকালে ব্যক্তিগত উদ্যোগে জেলা প্রসাশক মোঃ মতিউল ইসলাম চৌধুরীর মাধ্যমে মির্জাগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেøক্সে ডাঃ দিলরুবা ইয়াসমিন লিজার কাছে এক হাজার আইভি স্যালাইন ও একটি হাইক্লোন্যাম ক্যানোলা তুলে দেন এবি পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক প্রফেসর মেজর(অব)ডা: ওহাব মিনার। এসময় উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী জেলা সিভিল সার্জন ডা: মোঃ জাহাঙ্গীর আলম,মির্জাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান মোঃ আবুবকর সিদ্দিকী,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাঃতানিয়া ফেরদৌস,মির্জাগঞ্জ উপজেলা মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মোঃ সোহাগ হোসেন,সম্পাদক মোঃ রিয়াজ হোসাইন,যুগ্ম সম্পাদক মেহেদী হাসান মুবিন,সাংগঠকি সম্পাদক মোঃরনি খান প্রমুখ। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, করোনার মধ্যে তীব্র গরমে হঠাৎ করে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। প্রতিদিনই বাড়ছে ডায়রিয়া আক্রান্তে সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় উপজেলায় ৯৪ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালের নির্দিষ্ট বিছানায় স্থান না পেয়ে ফ্লোরে বিছানা করে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে আক্রান্তদের। তবে ফ্লোরে এবং বারান্দায় বিছানা দিয়ে চিকিৎসার পরিবেশ নেই বলেও অভিযোগ স্বজনদের। গতকাল বুধবারবার পর্যন্ত ৫৩৬ জন ডায়রিয়া রোগী স্বাস্থ্য কমপ্লেøক্সে ভর্তি হয়েছেন। চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫৮ জন। ভর্তি আছেন ১৭৮ জন। গত শুক্রবার থেকে প্রতিদিনই ৯০-১০০ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আসছেন। এদের মধ্যে অধিকাংশই নারী, শিশু ও বৃদ্ধ। পরে জেলা প্রসাশক মোঃ মতিউল ইসলাম চৌধুরীর হাসপাতাল পরিদর্শন করে ভর্তি রোগীদের খোজঁ খবর নিয়ে জানান,রোগীরা অধিকাংশ নদীর পাড়ে বাসিন্দা।নদীর লবনাক্ত পানি ব্যবহারের কারনে সংক্রমন প্রকট হচ্ছে বলে ধারনা করা যায়।