Agaminews
Agaminews Banner

বরিশাল নগরীর তিন এলাকা নিরব ঘোষণা


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০২১ ৬:২৮ পূর্বাহ্ণ বরিশাল নগরীর তিন এলাকা নিরব ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার ॥

বরিশাল নগরীর শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সদর হাসপাতাল ও শহীদ অ্যাডভোকেট আব্দুররব সেরনিয়াবাদ আইন মহাবিদ্যালয় এলাকা নিরব এলাকা হিসেবে ঘোষণা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রণে স্বমন্বিত ও অংশীদারিত্বমূলক প্রকল্পের আওতায় পরিবহন চালক ও লঞ্চ শ্রমিকদের জন্য শব্দ সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সমন্বিত ও অংশীদারিত্বমূলক প্রকল্পের আওতায় আজ ১৮ নভেম্বর বৃহষ্পতিবার জেলা প্রশাসনের হলরুমে এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে পরিবেশ অধিদপ্তর।

নগরের শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সদর হাসপাতাল ও শহীদ অ্যাডভোকেট আবদুর রব সেরনিয়াবাত আইন মহাবিদ্যালয় এলাকায় শব্দদূষণ ও গাড়ির হর্ণ বাজানো নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এসময় বরিশাল বিভাগের স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক মো. শহিদুল ইসলাম, পরিবেশ অধিদপ্তর বরিশাল বিভাগীয় পরিচালক আবদুল হালিম মিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহজাহান হোসেন, বিআরটিএর উপপরিচালক জিয়াউর রহমান, পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কামরুজ্জামান সরকার, সহকারী পরিচালক মো. তোতা মিয়া এসময় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয় শব্দদূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা ,২০০৬ অনুসারে নিরব এলাকায় যানবাহনে চলাচলকালে হর্ণ বাজানো নিষেধ , দন্ডনীয় অপরাধ এবং এর সাথে অর্থ দন্ডও হতে পারে। এতে জানানো হয় শব্দদূষণের ফলে শ্রবণশক্তি হ্রাস ও স্থায়ীভাবে নষ্ট হয়। উচ্চ রক্তচাপ ও ফুসফুসজনিত জটিলতা, ক্ষুধামান্দা, হৃদরোগ, মস্তিস্ক বিকৃতি, অনিদ্র ও স্মরণশক্তি হ্রাস পায়।

সভায় আরো জানানো হয়, বিদ্যালয় হাসপাতাল আবাসিক এলাকা হতে সকল ধরণের শব্দ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান অপসারণ করা উচিত।

বিআরটিএর কর্মকর্তা জানান, মটরজানে হাইড্রোলিক হর্ণ ব্যবহার অনুচিত। একবার এ হর্ণ চাপলে ১২০ ডেসিবল শব্দ তৈরি হয়। স্বাভাবিকভাবে একজন মানুষের ৬০ ডেসিবল শব্দ গ্রহণ করার ক্ষমতা রয়েছে বলে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার রিপোটি বলা হয়। এ আইন অমান্যকারীদের জন্য একমাস কারাদন্ড বা ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন বলে জানানো হয়। পরবর্তী অপরাধের জন্য অনধিক ৬ মাস কারাদন্ড বা ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন।