Agaminews
Agaminews Banner

মঠবাড়িয়ায় প্রতিবন্ধি না হয়েও প্রতিবন্ধি ভাতা নেয়ার অভিযোগ


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: নভেম্বর ০১, ২০২১ ৫:৩০ পূর্বাহ্ণ মঠবাড়িয়ায় প্রতিবন্ধি না হয়েও প্রতিবন্ধি ভাতা নেয়ার অভিযোগ

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি ॥ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার ওয়াহেদাবাদ গ্রামের মামুন হাওলাদার (৩৭) নামে এক ব্যক্তি প্রতিবন্ধি না হয়েও প্রতিবন্ধি ভাতা নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মামুন হাওলাদার উপজেলার নাগ্রভাংগা গ্রামের মৃত. মোকলেছুর রহমান হাওলাদারের ছেলে। সরেজমিনে গেলে ওয়াহেদাবাদ গ্রামের মো. হানিফ হাওলাদারের ছেলে মো. সবুজ অভিযোগ করেন, তাদের সাথে প্রতিবেশী ওই মামুনের সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলে। এ বিরোধের জেরে মামুন ও তার সহযোগি মজিবর ধারাল অস্ত্র দিয়ে সবুজের ভাই রাব্বি ও চাচাতো ভাই রাকিবকে এলোপাথারি কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় তার বাবা হানিফ হাওলাদার মামলা করলে পুলিশ কথিত প্রতিবন্ধি মামুনকে গ্রেফতার করে। মামুন দীর্ঘ দিন কারা ভোগের পর প্রতিবন্ধি কার্ড দেখিয়ে বিজ্ঞ আদালতের দৃষ্টি অন্যদিকে ঘুরিয়ে জামিন নেয়। মামুন আদালতে থেকে জামিন পেয়ে আমাদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগে জিডি করে। সবুজ ক্ষোভের সাথে আরও জানান, মামুন যদি প্রতিবন্ধি হয় তাহলে আমাদের বিরুদ্ধে জিডি করে কিভাবে ? মামুন সম্পূর্ণ সুস্থ্য মানুষ। সরেজমিনে গেলে স্থানীয় বাসিন্দারা জানান মামুন সম্পূর্ণ সুস্থ্য মানুষ। সে নিজের জমি, ঘরবাড়ি অর্থ-সম্পদ সব নিজের দখলে রেখেছে। সে প্রতিবন্ধি নয়। স্থানীয় চৌকিদার মহিবুল্লাহ বলেন, মামুন যদি প্রতিবন্ধি হতো তাহলে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নৈশপ্রহরী পদে চাকুরির জন্য আবেদন করে কিভাবে ? মামুন সম্পূর্ণ সুস্থ্য মানুষ। মামুনের ভাই রফিকুল ইসলাম বলেন, জমির জন্য মামুন তাকে মেরে কয়েকবার রক্তাক্ত করেছে। নিজের ভালটা নিজে খুবই ভালো বুঝে। এ ব্যপারে দু‘দফা সরেজমিনে গিয়েও অভিযুক্ত মামুনের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. মিরাজ আহম্মেদ বলেন, মামুন আসলেই প্রতিবন্ধি কিনা তা তদন্ত করে দেখা হবে।