Agaminews
Agaminews Banner

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হচ্ছে না: ডা. জাফরুল্লাহ


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: মে ০৭, ২০২১ ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হচ্ছে না: ডা. জাফরুল্লাহ

বার্তা ডেস্ক ॥
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে বলেছেন, “খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হচ্ছে না। তার শারিরিক অবস্থা খুবই খারাপ। উনার চিকিৎসা হলো মুক্তি। মুক্তি দিলে উনি কোথায় চিকিৎসা করবে সেটা উনার স্বাধীনতা। আমাদের অতীতের প্রতিহিংসা, ভুল স্মরণ না রেখে সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তিনি বলেন, মানসিক শক্তি না থাকলে সুস্থ হওয়া যায় না। সেই জন্য আমি আহ্বান করছি ছাত্রদের পাশাপাশি খালেদা জিয়াকেও মুক্তি দেওয়া হোক। উনার কিছু হয়ে গেলে পরে আক্ষেপ করতে হবে। পাশাপাশি তিনি বিএনপিকে জনগণের সমস্যা নিয়ে তা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করার আহবান জানান। আজ করোনা পরিস্থিতির এই সংকটকালে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের খাদ্য সহায়তা কর্মসূচি-২০২১” এর আওতায় ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। দুঃস্থ গৃহকর্মী, অসহায় হকার-শ্রমিক, মসজিদের মুয়াজ্জিনসহ কর্মহীন সাংবাদিকদের মাঝে মোট ৮২০ প্যাকেট খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়। ২৪ কেজি ওজনের প্যাকেটে একটি মাঝারি পরিবারের ১৫ দিন চলার মতো খাদ্য সামগ্রী রয়েছে। ঈদের আগে আরেও ৫০০ প্যাকেট ত্রাণ বিতরণের পরিকল্পনা রয়েছে। আজ ঢাকা শহরের ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, প্রেস ক্লাব, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, তোপখানা রোড, হাজারীবাগ ও বাড্ডা এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করা হয়। দেশে এখন ভয়াবহ অবস্থা বিরাজমান উল্লেখ করে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এসময় বলেন, “দেশে এখন ভয়াবহ অবস্থা। করোনা পরিস্থিতি খারাপ, মানুষের মুখে খাবার নেই। এর সাথে যোগ হয়েছে সরকারের ভুল নীতি। গণপরিবহন চলছে না, অথচ প্রাইভেট গাড়ি চলছে। তবে ঈদে বাড়ি যেতে হলে মানুষের করোনা পরীক্ষা করে বাড়ি পাঠানো উচিত”। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র মানুষের জন্য কাজ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন,”এখানে প্রায় ১৫ দিনের খাবার আছে। লোক দেখানো দান করে লাভ নাই। ধনাঢ্যদের পাশাপাশি আমাদের কর্মীরাও ১ দিনের বেতন ডোনেট করেছে”। এসময় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেশের ধনাঢ্য ব্যক্তিদের আরও বেশি করে আর্ত মানবতার সেবায় এগিয়ে আসার আহবান জানান। পাশাপাশি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের খাদ্য সহায়তা কর্মসূচি অব্যাহত রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টুসহ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। বেলা সাড়ে ১২টায় বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এম আবদুল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন রোকনের নিকট বেকার সাংবাদিকদের ঈদের খাদ্য উপহার হস্তান্তর করেন গনস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা মনজুর কাদির আহমেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ডা আরমান। দুপুর ১টায় ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সাধারণ সম্পাদক কাজল হাজ্রা ও ট্রেজারার মইন আহমেদের নিকট খাদ্য উপহার হস্তান্তর করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু।