Agaminews
Agaminews Banner

আজ থেকে আন্তঃজেলা বাস চলাচল শুরু


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: মে ০৫, ২০২১ ৫:২৫ অপরাহ্ণ আজ থেকে আন্তঃজেলা বাস চলাচল শুরু

শফিক মুন্সি ॥
করোনা মহামারিতে দ্বিতীয়বারের মতো সংক্রমণ বৃদ্ধির পর গত একমাস যাবৎ বন্ধ আছে গণপরিবহন। তবে সরকারের সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বরিশালের দুটি বাস টার্মিনাল থেকে আন্তঃজেলায় বাস চলাচল শুরু হবে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে যথাযথ স্বাস্থ্য বিধি মেনে যাত্রী পরিবহন শুরু করবে বলে নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় বাস মালিকেরা। আর এমন সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন গণপরিবহণের শ্রমিকেরাও। গতবছর (২০২০) লকডাউনে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল সকল ধরণের গণপরিবহন (বাস,লঞ্চ, প্লেন ইত্যাদি)।চলতি বছরে পুনরায় সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ৫ই এপ্রিল থেকে আবার যাত্রী পরিবহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে সরকার। তবে গতকাল বুধবার সরকার কর্তৃক জারিকৃত সর্বশেষ প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, আগামী ১৬ই মে পর্যন্ত আন্তঃজেলায় যাত্রী পরিবহনের সুযোগ দেয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বরিশাল নগরীর দুটি বাস টার্মিনাল থেকে জেলার শেষ প্রান্ত এবং আন্তঃজেলায় বাস চলাচল করবে। তবে যাত্রীদের অতিরিক্ত ৬০ শতাংশ ভাড়া গুনতে হবে। এছাড়া প্রতি দুই সিটে একজন করে বসা এবং প্রত্যেক যাত্রীকে মাস্ক ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আর দীর্ঘদিন পর বাস চলাচল শুরু হওয়ায় বেকার হয়ে পরা শ্রমিকদের দুর্দশা কিছুটা লাঘব হবে বলে জানিয়েছেন নেতারা। নগরীর নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালস্থ বরিশাল জেলা বাস মালিক গ্রুপের যুগ্ম সম্পাদক কিশোর কুমার জানান, তারা জেলার চারটি উপজেলায় বাস চলাচল শুরু করবেন। এছাড়া মাদারীপুরে সীমান্তবর্তী বরিশালের ভূরঘাটা পর্যন্ত যাত্রী পরিবহন করবেন। ভূরঘাটা থেকে মাদারীপুর জেলার বাস পাওয়া যাবে। বরিশাল – পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতির সভাপতি ঈমান হোসেন কালু জানান, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে তারা জেলার মধ্যে বাস চলাচল শুরু করবে। এক্ষেত্রে রূপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে পটুয়াখালী জেলার প্রবেশদ্বার লেবুখালী ফেরিঘাট ও ঝালকাঠি শহরের প্রবেশদ্বার কালিজিরা পর্যন্ত যাত্রী পরিবহন করবে তারা। তবে যাত্রীদের ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়া প্রদান ও প্রতি দুই সিটে একজন করে বসতে হবে। বরিশাল জেলা বাস – মিনিবাস পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি পরিমল চন্দ্র দাস বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে যানবাহন শ্রমিকেরা সবচেয়ে বেশি কষ্টতে আছে। গতবছরের পর চলতি বছরের ৫ই এপ্রিল থেকে গণপরিবহন বন্ধ। এমতাবস্থায় স্বাস্থ্য বিধি পালন করে আন্তঃজেলা বাস চলাচল শুরু হলে বাসের মালিক – শ্রমিকেরা অন্তত খেয়ে বাঁচতে পারবে।