Agaminews
Agaminews Banner

মির্জাগঞ্জ ভূমি কর্মচারীদের বিরুদ্ধে স্বজনদের নাম দিয়ে অর্পিত সম্পত্তি দখল


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: এপ্রিল ২৬, ২০২১ ৫:৫৬ অপরাহ্ণ মির্জাগঞ্জ ভূমি কর্মচারীদের বিরুদ্ধে স্বজনদের নাম দিয়ে অর্পিত সম্পত্তি দখল
মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ॥
পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে সুবিদখালী বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন পূর্ব সুবিদখালী গ্রামে তথ্য গোপন ও আইন লঙ্গন করে পুরান ইজারা বাতিল না করে ভূমি অফিসের তিন কর্মচারীর নিজ পরিবারের সদস্যদের নামে ১৮ শতাংশ অর্পিত সম্পত্তি ইজারা নেওয়ার নামে বালু দিয়ে ভরাট সহ আশে পাশের মালিকানা জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, উপজেলা ভূমি অফিসের অফিস সহায়ক খাদিজাতুল কোবরার স্বামী মোঃ জাহিদুল ইসলাম,নৈশ্য প্রহরী মোঃ জামিল আহমেদের মেয়ে ফাতিমা বেগম, পরিচ্ছন্ন কর্মী নিত্য মালীর ছেলে শুভ মালী সহ মোট পাচঁ জনের নামে ইজারা নিয়েছে বলে ভরাটের কাজ চালাচ্ছে। ক্ষিতেষ চন্দ্রের রেকডিও সম্পত্তি ছিল,স্বাধীনতার পর তাকে মৃত দেখিয়ে জমি অর্পিত সম্পত্তি (ভিপি) করা হয়। ১৪১৪ বঙ্গাব্দা পর্যন্ত মোবারক আলী মুন্সি ইজারা নেন।পরে ক্ষিতেষ জীবিত ফিরে আসলে মোবারক আলী মুন্সি এই জমি ভোগ করবেনা বলে নিদাবী দেন ক্ষিতষকে । উক্ত অর্পিত সম্পত্তি নিয়ে পটুয়াখলীর ভিপি ট্রাইবুনাল কোর্টে মামলাও চলমান। এছাড়াও ১৪১৪ বঙ্গাব্দ পর্যন্ত ইজারা বাতিল না করে কিভাবে অন্য নামে ইজারা দেওয়া হলো ? স্থানীয় ভুক্তভোগী মোঃ মোসলেম আলী জানান, ঐ জমিতে বালু ফালানোর পাশাপাশি  পাশের আমার জমি বালি দিয়ে দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে ভুমি অফিসের খাদিজা। উপজেলা ভূমি কার্যালয়ের অফিস সহায়ক খাদিজাতুল কোবরা বলেন, আমার আত্মীয়র নামে ইজারা নেওয়া, আমি মাধ্যম হয়ে বালি ফালাচ্ছি। এক পর্যায় তার স্বামীর নামে ইজারা নেওয়া হয়েছে বলে স্বীকার করেন। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ রায়হানুজ্জামান বলেন, ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করলে তদন্ত করা হবে এবং নিয়ম বহির্ভুত ভাবে ইজারা নেওয়া হলে তা বাতিল করা হবে।