Agaminews
Agaminews Banner

নগরীর হাটখোলায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী সহ চা বিক্রেতার উপর হামলার অভিযোগ 


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: এপ্রিল ২৫, ২০২১ ৫:১৭ অপরাহ্ণ নগরীর হাটখোলায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী সহ চা বিক্রেতার উপর হামলার অভিযোগ 
বার্তা ডেস্ক ॥
বরিশাল নগরীর হাটখোলা এলাকায় চাঁদা না পেয়ে চায়ের দোকানদার ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রবিবার দুপুর আড়াইটায় হকার্স মার্কেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলো, হাটখোলা হকার্স মার্কেট এলাকার মকবুল হাওলাদারের ছেলে তুহিন হাওলাদার এবং তার সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জোসনা বেগম। বর্তমানে তারা গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত তুহিন জানান, তুহিন হকার্স মার্কেটের সামনে চা বিক্রি এবং সাউন্ড লাইটিং এর ব্যবসা করে আসছে। প্রায় সময় পার্শ্ববর্তী ইসমাইলের ছেলে সোহেল ওরফে চা নুরি সোহেল রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে তুহিন এর কাছে বাকিতে চা পান করে এছাড়া মাঝেমধ্যে নগদ টাকা ধার চাই। তুহিন টাকা দিতে অস্বীকার করলে সোহেল ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। এবং বিভিন্ন ভয়-ভীতির সহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়। সম্প্রতি লাইটিং ও সাউন্ড সিস্টেম এর কথা বলে বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরে তুহিন এর কাছে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে। তুহিন বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ করলে সোহেল আরো ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। ঘটনার দিন দুপুর আড়াইটায় সোহেল ও তার ভাই সোহাগ পরিকল্পিতভাবে তুহিনের দোকান ভাঙচুর চালায়। এসময় তুহিন বাধা দিলে তাকে রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। তুহিনের ডাক চিৎকারে তুহিনের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জোসনা আসলে তাকে লাথি মেরে তার গর্ভের সন্তান হত্যার  চেষ্টা চালায়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন। তুহিনের বড় ভাই আরমান হাওলাদার জানান, চা নুরি সোহেল একজন সন্ত্রাস প্রকৃতির লোক। নিজেকে রাজনৈতিক নেতা পরিচয় দিয়ে হকার্স মার্কেট এলাকায় সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালাচ্ছে। প্রায় সময় দোকানে এসে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করে। সোহেলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আমরা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। অন্যদিকে অভিযুক্ত সোহেল জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে চা বিক্রেতা তুহিনের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। তুহিন সহ তাদের লোকজন সোহেল ও ভাই সোহাগের উপরে হামলা চালায় পাশাপাশি সোহেলের দোকানপাট ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে আহতের স্বজনরা জানান।