Agaminews
Agaminews Banner

পটুয়াখালী সাত ইউপিতে পাঁচ নৌকা ২ স্বতন্ত্র


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৭, ২০২১ ২:০৮ অপরাহ্ণ পটুয়াখালী সাত ইউপিতে পাঁচ নৌকা ২ স্বতন্ত্র

নিউজ ডেস্ক:

চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া তিনটি ও রাঙ্গাবালী উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে পাঁচটিতে নৌকা ও দুইটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছে।

তবে সুষ্ঠু ভোট গ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নে গুলিবিদ্ধ হয়ে আবদুল খালেক নামে এক ব্যক্তি নিহত হন।

রোববার (২৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার পর চরমন্তাজ ইউনিয়নে নয়ার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ওই ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হন। তবে তিনি কার গুলিতে তিনি নিহত হয়েছেন, সে বিষয়ে এখনও স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ নির্বাচনে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রতিটি কেন্দ্রে আনসার ও পুলিশ সদস্য এবং ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে র‍্যাব, বিজিবি সদস্যসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা নিয়োজিত ছিল। এ ছাড়াও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের মো. বাবুল মিঞা ৮০৬০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাতপাখা মার্কার মো. আনোয়ার শিকদার পেয়েছে ৬০৫০ ভোট। টিয়াখালী ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদুল হাসান সুজন মোল্লা ৪১০৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের মো. মশিউর রহমান পেয়েছে ৩১৪৬ ভোট।

একই উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র (বিএনপি) ঘোড়া প্রতীকের মো. মজিবুর রহমান ২৯৮৮ পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাতপাখা প্রতীকের আব্দুল জলিল মিয়া পেয়েছে ২৬৪২ ভোট।

এ উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে ইউনিয়নের ২৭টি ভোট কেন্দ্রে ৪৯ হাজার ৭৫৩ জন ভোটারদের মধ্যে শতকরা ৭৪ ভাগ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

এদিকে রাঙ্গাবালী উপজেলার চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের মু. জাহিদুর রহমান ২৪৭৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাতপাখা প্রতীকের পেয়েছে ১৫২০ ভোট।

এই উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নে একে শামসুদ্দিন আবু মিয়া পেয়েছে ৫৬৪৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম হাতপাখা প্রতীকের মনিরুজ্জামান মনির পেয়েছেন ৩২৯৭ ভোট।

একই উপজেলার রাঙ্গাবালী সদর ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের সাইদুজ্জামান মামুন খান বিজয়ী হয়েছে। এ উপজেলার ছোট বাইশদিয়া ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের এ বি এম আবদুল মান্নান বিজয়ী হয়েছেন। এ চারটি ইউনিয়নের ৩৯টি ভোট কেন্দ্রে ৬৩ হাজার ১৪৩ জন ভোটার এর মধ্যে পুরুষ ৩১ হাজার ৮৩৭ জন এবং মহিলা ৩১ হাজার ২৯২ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

পটুয়াখালী জেলা নির্বাচন অফিসার খান আবি শাহানুর খান বলেন, কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই জেলার ৭ ইউনিয়নের ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে যা যা করণীয় ছিল তা করেছে প্রশাসন। এ নির্বাচনে পটুয়াখালীতে পাঁচটি ইউনিয়নে ব্যালটের মাধ্যমে এবং দুইটি ইউনিয়নে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।