Agaminews
Agaminews Banner

আমতলীর ১৬টি ইটভাটায় প্রায় ২ কোটি টাকা ক্ষতি


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: ডিসেম্বর ০৭, ২০২১ ৩:৩২ অপরাহ্ণ আমতলীর ১৬টি ইটভাটায় প্রায় ২ কোটি টাকা ক্ষতি

নিউজ ডেস্ক:

বরগুনার আমতলী উপজেলায় গত কয়কেদিনের টানা বৃষ্টিতে ১৬টি ইটভাটায় প্রায় ২ কোটি টাকা ক্ষতি হয়ছে। এমনটাই দাবি করেছেন ইটভাটার মালিকরা।

মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার বিভিন্ন ইটভাটার প্রস্তুতকৃত কাঁচা ইট বৃষ্টিতে ভিজে নষ্ট হয়ে গেছে এমন চিত্র দেখা গেছে।

বরগুনার তালতলী উপজেলায় অন্তত ১৬টি পরিবেশবান্ধব ইটভাটা আছে। এসব ভাটার চুল্লি দেবে ভেতরে সাজানো কাঁচা ইটের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। মৌসুমের শুরুতেই এতো বড় ক্ষয়ক্ষতির কারণে কমবেশি লোকসান গুনতে হবে ইটভাটা মালিকদের এমনটিই জানালেন ভাটার মালিকরা।

সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, গভীর সমুদ্রে লঘুচাপের কারণে হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টি মোকাবিলায় প্রস্তুত না থাকার কারণে বিপুল পরিমাণ কাঁচা ইট নষ্ট হয়ে কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ এর প্রভাবে টানা বর্ষণে আমন ফসল ও ইটভাটার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। প্রস্তুতকৃত কাঁচা ইট পানিতে ভিজে নষ্ট হওয়ায় তারা ব্যাপক ক্ষতির শিকার হয়েছেন। বেশির ভাগ ইটভাটা নীচু এলাকায় হাওয়ায় ক্ষতির পরিমাণ বেশি হয়েছে। এদিকে কয়েকটি ইটভাটায় কয়েক হাজার শ্রমিক বেকার সময় পার করছেন।

ইটভাটা শ্রমিকরা বলেন, কাজ বন্ধ থাকলে সেদিনগুলোতে আমরা কোনো বেতন পাই না। এখানে যারা কাজ করেন তাদের অনেকেরই বাড়ি অন্য জেলায়। এমত অবস্থায় সংসার চালানো কঠিন হয়ে পড়বে।

তালতলী উপজেলা ইটভাটা মালকি সমিতির সভাপতি সাবেক মেয়র নাজমুল আহসান নান্নু মোবাইল ফোনে বাংলানিউজকে বলেন, ভারী বর্ষণের ফলে ১৬টি পরিবেশ বান্ধব ইটভাটায় ২ কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে। ভাটা মালিকদের সহযোগিতা করতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করবো আমার।

তিনি আরও বলেন, হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হবে বুঝে উঠতে পারিনি। টানা বৃষ্টির কারণে প্রস্তুতকৃত কাঁচা ইট ভিজে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে সব ইটভাটা মালিকরাই ব্যাপক ক্ষতির সম্মূখিন হয়েছেন।