Agaminews
Agaminews Banner

চরফ্যাশনে এনজিওর ব্যবস্থাপকের নির্দেশের ৫৫ বছরের বৃদ্ধের দাড়ি ছিড়ে নেওয়ার অভিযোগ


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: এপ্রিল ১৯, ২০২১ ৪:৫২ অপরাহ্ণ চরফ্যাশনে এনজিওর ব্যবস্থাপকের নির্দেশের ৫৫ বছরের বৃদ্ধের দাড়ি ছিড়ে নেওয়ার অভিযোগ
চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি ॥
চরফ্যাশন উপজেলা শশীভূষণ থানা রসুলপুর ইউনিয়নে এনজিওর ব্যবস্থাপকের নির্দেশে ৫৫ বছরের বৃদ্ধের উপর হামলা চালিয়ে তার মুখের দাড়ি ছিড়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বরিবার বিকালে উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড জয়নাল আবদীন মৃধা বাড়েতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী আব্দুল লতিফ মৃধা অভিযোগ করে বলেন ওয়ারিশ সূত্রে আমার পিতার সম্পত্তি ভাগ করে নেওয়ার পর থেকেই  দীর্ঘদিন যাবৎ আমার ভাই হাবিব মৃধা এবং তার ভাবি হালিমা বেগম ও ভাতিজা আলামিন আমার সম্পত্তি আত্মসাৎ করার জন্য সব সময় আমার ফ্যামিলির সাথে খারাপ আচরণ ও জোর জুলুম করতে থাকে, এতে স্থানীয় ভাবে একাধিকবার শালিস মীমাংসা করে তাদেরকে শান্ত করতে পারেনি। গত রবিবার আমার ঘরের নির্মাণ কাজ শুরু করলে ঘরের চালের উপর তাদের কাঁঠাল গাছের ডাল থাকায় কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে তাই আমার ভাবি হালিমা বেগম কে বিষয়টি অবগত করে গাছের ডাল কেটে নেওয়ার জন্য অনুরোধ করি এই বিষয়ে আমার ভাবি গাছের ডাল কাটবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয় এ সময় আমার ঘর নির্মাণ মিস্ত্রি বসে থাকায় আমি আমার ঘরের চালের উপরে থাকা কাঁঠাল গাছের একটি ডাল কেটে দেই এই নিয়ে ভাবির সাথে আমার কথার কাটাকাটি হয় এ বিষয়ে ভাবি হালিমা বেগম তার ছেলে ঘুইংগারহাট পদক্ষেপ মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রের ম্যানেজার মোহাম্মদ আল আমিনকে বিষয়টি অবগত করলে ভাতিজা আল আমিন তার মা হালিমা বেগম কে আমার দাড়ি ছেড়ে নেওয়ার ও হামলা করার নির্দেশ দিয়ে বলেন আমিও আসতেছি নির্দেশ পেয়ে আমার ভাবী হালিমা বেগম আমার ঘরে প্রবেশ আমার উপর হামলা করে ও আমার মুখের দাড়ী টেনে ছিড়ে ফেলেন এবং দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমার গলায় আঘাত করার চেষ্টা করে এতে আমার থুতনির নিচে অনেকটা কেটে যায়। এতে স্থানীয় লোকজন এসে আমাকে উদ্ধার করে। বিষয়টি স্থানীয় থানায় অবগত করার জন্য আমি থানায় এসে একটি অভিযোগ দাখিল করি। এ বিষয়ে অভিযুক্ত ঘুইংগার হাট শাখার পদক্ষেপ মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রের ম্যানেজার মোহাম্মদ আল আমিনকে জিজ্ঞেস করলে তিনি সংবাদকর্মীদের কোন প্রশ্নের উত্তর দিতে বাধ্য নয় বলে চলে যাওয়ার সময় আল আমিনের ছোট বোন সংবাদকর্মীদের দিকে তেড়ে এসে বলেন সাংবাদিক-পুলিশ আমরা খাই কিসের প্রশ্নের জবাব দেব। এ বিষয়ে গতকাল সোমবার দুপুরে শশীভূষণ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।