Agaminews
Agaminews Banner

এনআইডির দায়িত্ব ইসিতে থাকা উচিত: বরিশালে সিইসি


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: জুন ১২, ২০২১ ৭:৩৬ অপরাহ্ণ এনআইডির দায়িত্ব ইসিতে থাকা উচিত: বরিশালে সিইসি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের কাছেই থাকা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) সিইসি কে এম নূরুল হুদা। গতকাল শনিবার সকালে বরিশাল সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি আরও বলেন, করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া নির্বাচনে করোনার বিস্তার ঘটায় এমন যুক্তিতে আমি বিশ্বাস করি না। করোনা বিস্তারের ১০০টি কারণের মধ্যে নির্বাচন একটি কারণ হতে পারে মাত্র। বরিশাল অঞ্চলে যথাসময়েই সকল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে বিভাগীয় নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২১ জুন বরিশাল বিভাগের ১৭৩টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে এর মধ্যে ২৬ ইউনিয়নে একজন করে চেয়ারম্যান প্রার্থী থাকায় তারা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। এ ইউনিয়নগুলোতে শুধু সদস্য পদে নির্বাচন হবে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার তার বক্তব্যের পক্ষে যুক্তি দিয়ে সিইসি বলেন, ‘পাশের দেশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সম্প্রতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও সবচেয়ে বেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছে দিল্লিতে। সেখানে নির্বাচন হয়নি। আমেরিকায়ও নির্বাচনের পরে করোনা সংক্রমণ বাড়েনি। কোভিড পরিস্থিতি শুরুর পর পৃথীবির বিভিন্ন দেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও ওই দেশগুলোতে এর প্রভাব পড়েনি।’ গতকাল শনিবার সকালে বরিশাল সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিভাগের জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তার সঙ্গে সভা করে ইউপি নির্বাচন নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ে নানা দিক নির্দেশনা দেন। বরিশালের জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দীন হায়দার সভায় সভাপতিত্ব করেন। নাগরিকদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) প্রদানের বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের কাছে থাকবে কি-না জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘বিশ্বের অন্যান্য দেশে এনআইডি কার্যক্রম ভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কাছে ন্যাস্ত থাকে। নির্বাচন কমিশন শুধু নির্বাচন পরিচালনা করে। আমাদের দেশে যেহেতু এনআইডি কার্যক্রমেরও সূচনা করেছে নির্বাচন কমিশন, তাই এটি কমিশনের কাছেই থাকা উচিত বলে সরকারের কাছে লিখিত ব্যাখ্যা দিয়েছি।’ প্রশাসনের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের কাছে একজন প্রার্থীর পরিচয় শুধু প্রার্থী। তিনি কোন দল-মত বা গোত্রের এটা বিবেচনা করে কোনো প্রার্থীকে অধিকার বঞ্চিত করা যাবে না।’ নির্বাচনে আচরবিধি লঙ্ঘনকারীদের কঠোরভাবে আইনের আওতায় আনার জন্য মাঠ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে সিইসি বলেন, ‘এবার নির্বাচন সুষ্ঠু হবে।’ মতবিনিময় সভায় আরও বক্তৃতা করেন- বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার সাইফুল হাসান বাদল, পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান, রেঞ্জ ডিআইজি মো. আক্তারুজ্জামান, নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহম্মেদ খান ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন।