Agaminews
Agaminews Banner

বাউফলে নির্বাচনী সহিংসতার নির্মম শিকার নারী, গ্রেফতার ৯


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: এপ্রিল ১৭, ২০২১ ২:৪২ অপরাহ্ণ বাউফলে নির্বাচনী সহিংসতার নির্মম শিকার নারী, গ্রেফতার ৯
বার্তা ডেস্ক ॥
পটুয়াখালীর বাউফলে এক নারীকে নির্মম নির্যাতনের প্রধান শাকিল হোসেন ওরফে শাকিল ডাক্তারসহ নয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পটুয়াখালী পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, সত্তার রাঢ়ির ছেলে ও মামলার প্রধান আসামি শাকিল হোসেন ওরফে শাকিল ডাক্তারকে (৪০) শুক্রবার রাতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে বাউফলের নাজিরপুর ইউনিয়নে তার শ্বশুর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার অন্য আসামিরা হলেন আ: মতলেব গাজীর ছেলে মো: শাহআলম গাজী (৫০), আ: রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে মো: জাফর হাওলাদার (৪০), কুদ্দুস বিশ্বাসের ছেলে মো: হৃদয় বিশ্বাস (১৯), নুরা হাওলাদারের ছেলে মো: সজিব হাওলাদার (১৯), আ: খালেক মৃধার ছেলে মো: মনির মৃধা (৩৫), আ: রশিদ মীরের ছেলে পারভেজ মীর (৩৫), আ: খালেক মৃধার ছেলে ইউসুফ মৃধা (৩০) ও আ: ওহাব হাওলাদারের ছেলে মো: আজিজুল হক (৪৫)। তাদের সবার বাড়ি বাউফলের চরমিয়াজান গ্রামে। পুলিশ সুপার বলেন, বাউফল উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই মেম্বর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় বাবুল হাওলাদারের সমর্থক শাকিল হোসেন ওরফে শাকিল ডাক্তাররা কালু হাওলাদারের সমর্থক আকলিমা আক্তারকে নির্মম নির্যাতন করে। তার ঘরবাড়িও ভাঙচুর করে অভিযুক্তরা। গত বৃহস্পতিবার এ ঘটনার পর শুক্রবার আকলিমা আক্তারকে মারধর করার ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এ বিষয়ে আ: সালাম হাওলাদার বাউফল থানার মামলা দায়ের করেন। এরপর শুক্রবার রাতে অভিযান চালিয়ে আসামিদের গ্রেফতার করে পুলিশ। ভিকটিম আকলিমা আক্তার বর্তমানে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মাহফুজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো: মুকিত হাসান খান, বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আল মামুন ও পটুয়াখালী ডিবি পুলিশের ইনচার্জ মো: শাহজাহান খান।