আজকের বার্তা
আজকের বার্তা

ঝালকাঠিতে যুবলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৬


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: নভেম্বর ১৬, ২০২৩ ৭:৫০ অপরাহ্ণ ঝালকাঠিতে যুবলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৬
Spread the love

বার্তা ডেস্ক ॥ ঝালকাঠিতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে যুবলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে ছয়জন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে শহরের পোস্ট অফিস সড়কে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়া তাদের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করিম জাকির ও যুগ্ম আহ্বায়ক কামাল শরীফের সঙ্গে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা সৈয়দ হাদিসুর রহমান মিলনের বিরোধ চলছিল। আজ বৃহস্পতিবার শহরের পোস্ট অফিসের সামনে বিএনপির ডাকা অবরোধের বিরুদ্ধে মহরা দেওয়ার জন্য দুই পক্ষ মোটরসাইকেল নিয়ে অবস্থান নেয়। এ সময় পূর্বশত্রুতার জেরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় পক্ষের ছয়জন নেতাকর্মী আহত হন।

এ সময় ১০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পক্ষকে সরিয়ে দেয়। এ ঘটনার পর থেকে শহরে যুবলীগের দুই পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঝালকাঠি থানার ওসি নাসির উদ্দিন সরকার।

জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করিম জাকিরের অভিযোগ- মিলনের সমর্থকরা তাদের মহড়ার পেছন দিক থেকে হামলা করে দুইজন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে আহত করে। এ ঘটনার পর সংঘর্ষ শুরু হয়।

অন্যদিকে সৈয়দ মিলনের সমর্থকরা জানান, তাঁরা অবরোধবিরোধী মোটরসাইকেল মহড়া দেওয়ার সময় পোস্ট অফিস সড়কে তাদের বহরে যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করিম জাকির ও কামাল শরীফের অনুসারীরা হামলা চালায়।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন সরকার জানান, যুবলীগের দুই পক্ষের মধ্যে আগে থেকেই বিরোধ ছিল। এরই জেরে হামলা ও সংঘর্ষ হয়েছে।

পুলিশ দুই পক্ষকেই সরিয়ে দিয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। শহরের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।