আজকের বার্তা
আজকের বার্তা

বরিশালে মামলার তথ্য অনলাইনে, ভোগান্তি কমেছে বিচারপ্রার্থীদের


আজকের বার্তা | প্রকাশিত: অক্টোবর ২৬, ২০২৩ ৬:৩৬ অপরাহ্ণ বরিশালে মামলার তথ্য অনলাইনে, ভোগান্তি কমেছে বিচারপ্রার্থীদের
Spread the love

বার্তা ডেস্ক ॥ বরিশালে বিচারাধীন মামলা সম্পর্কে অনলাইনের মাধ্যমে বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে তথ্য জানতে পারছেন বিচারপ্রার্থীরা। অনলাইনে আদালতের কার্যতালিকা থেকে মামলার পরবর্তী তারিখ, আদেশ, পূর্ববর্তী আদেশ এবং মামলার চলমান অবস্থা সম্পর্কে জানা যাচ্ছে। বিচার বিভাগের চালু হওয়া অনলাইন কজলিস্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এ সুফল পাচ্ছেন বরিশালের বিচারপ্রার্থীরা।

বরিশাল চীফ জুডিসিয়াল আদালত সূত্রে জানা যায়, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে অনলাইন কার্যক্রম জোরদার করেছে বিচার বিভাগ। এরই অংশ হিসেবে গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে স্মার্ট বিচার বিভাগ বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে ‘সব মামলার তথ্য এক ঠিকানা’ ¯স্লোগানে জেলা পর্যায়ে আদালতের বিচারাধীন মামলার তথ্য অনলাইনে প্রকাশের উদ্যোগ নেয় সরকার। অনলাইনে নিয়মিত আদালতে বিচারাধীন মামলার তথ্য পাচ্ছেন বিচারপ্রার্থীরা।

পাশাপাশি মোবাইলফোনে গুগল প্লেস্টোরে ‘আমার আদালত’ নামে অ্যাপ ডাউনলোড করে একই সেবা মিলছে। বিচারপ্রার্থীরা অনলাইনে ঘরে বসেই বিনা খরচে তাদের মামলার পূর্ববর্তী আদেশ, বর্তমান অবস্থা, পরবর্তী তারিখ ও আদেশ সম্পর্কে জানতে পারছেন।

এরজন্য প্রথমে ‘আমার আদালত’ নামের এই অ্যাপে ঢুকতে হয়। সেখানে ‘মামলার কার্যতালিকা’ অপশনে ক্লিক করতে হয়। এরপর বিভাগ, জেলা, আদালত ও তারিখ নির্বাচন করতে হবে। এছাড়া শুধু নম্বর ও তারিখ দিয়ে কাঙ্খিত মামলা সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জানা যায়। দেশের অন্য আদালতের মতো বরিশাল জেলা ও দায়রা জজ আদালত এবং চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিচারাধীন মামলার তথ্য অনলাইনে জানতে পারছেন বিচারপ্রার্থীরা। বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত আদালত ভবনের তথ্য সেবাকেন্দ্র থেকে জানা যাবে।

বরিশাল আদালতে আসা আবু তাহের নামে এক ব্যাক্তি বলেন, আমি প্রবাসে থাকি। আমার একটি পারিবারিক বিষয় নিয়ে মামলা চলছে। আমি স¤প্রতি দেশে ফিরেছি। প্রবাসে থাকাকালে আমাকে একজন জানিয়েছিলেন, অনলাইনে মামলার তারিখ কবে তা দেখা যায়। দেশে ফেরার আগে অনলাইনে আমার মামলার শুনানির তারিখ জেনে এসেছি। এ বিষয়টি জানতে পারলে সবাই উপকৃত হবে।

আরিফুর রহমান মন্টু নামে আরেক বিচারপ্রার্থী বলেন, আদালতে এসে জানতে পেরেছি ঘরে বসেই মামলার অবস্থা এবং আইনি সেবা পেতে পারি। পরবর্তী তারিখ আমার কবে তাও জানতে পারবো। অনেক সময় কেবল মামলার শুনানি কবে, তা জানতে আদালতে আসতে হতো। এই ধরনের সেবা চালু হওয়াতে সরকার ও বিচারকদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।

এ বিষয়ে বরিশাল আদালতের এ্যাডভোকেট মাসুদ হাওলাদার বলেন, অনলাইন পদ্ধতি চালু হওয়ায় আইনি সেবা সাধারণ মানুষ ঘরে বসেই পাবেন। বিষয়টি সম্পর্কে বেশি বেশি প্রচার করলে বিচারপ্রার্থীরা আরও জেনে সুবিধা পাবেন।

চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নাজির তরিকুল ইসলাম বলেন, অনলাইনে কজলিস্ট চালু হওয়ায় বরিশালের বিচারপ্রার্থীরা ঘরে বসেই তাদের মামলার তথ্য, পরবর্তী ও পূর্ববর্তী তারিখ এবং অবস্থা সম্পর্কে জানতে পারছেন। এতে তাদের সুবিধা বৃদ্ধির পাশাপাশি ভোগান্তি কমেছে।